. বাংলায় মুসলিম ও স্বাধীন সুলতানী শাসন প্রতিষ্ঠা - SiSTunes.Com

বাংলায় মুসলিম ও স্বাধীন সুলতানী শাসন প্রতিষ্ঠা



বাংলায় মুসলিম শাসন প্রতিষ্ঠা

ভারতীয় উপমহাদেশে মুসলমানদের রাজ্য বিস্তারের তিনটি পর্যায় লক্ষ করা যায়। প্রথমত, ইরাকের।

শাসনকর্তা হাজ্জাজ বিন ইউসুফের ভ্রাতুষ্পুত্র ও জামাতা মুহাম্মদ বিন কাসিমের নেতৃত্বে ৭১২ খ্রিষ্টাব্দের যুদ্ধে

রাজা দাহির পরাজিত ও নিহত হলে সিন্ধু ও মুলতান রাজ্য মুসলমানদের অধিকারে চলে আসে।

বহামাদ বিন কাসিমের সিন্ধু ও মুলতান জয়ের প্রায় ৩০০ বছর পর একাদশ শতকের প্রথম দিকে গজনীর তুর্কি

ান আমীর সবুক্তগীন ও তার পুত্র সুলতান মাহমুদ পুনঃপুন ভারত আক্রমণ করেন। ১০০০-১০২৭ সালের

মধ্যে সুলতান মাহমুদ মােট ১৭ বার ভারত আক্রমণ করেন।

সুলতান মাহমুদের মৃত্যুর প্রায় দেড়শ বছর পর উপমহাদেশে মুসলিম শাসন

প্রতিষ্ঠিত হয়। এ পর্যায়ে নেতৃত্ব দান করেন মুঈজ-উদ-দীন মুহাম্মদ-বিন-সাম,

যিনি ইতিহাসে মুহাম্মদ ঘুরী নামে পরিচিত। ১১৯২ সালে দ্বিতীয় তরাইনের যুদ্ধে

মহাম্মদ ঘুরী পৃথবীরাজকে পরাজিত করে দিল্লি ও আজমীর দখল করেন। এ সময়ে

(১২০৪ সালে) ইখতিয়ার-উদ্দিন মুহাম্মদ বিন বখতিয়ার খলজি নামে এক তুর্কী

ভাগ্যান্বেষী মুসলমান সমগ্র বিহার ও বাংলার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল জয় করেন।

এভাবে মুহাম্মদ ঘুরী ভারতে মুসলিম রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা হলেও বাংলায় মুসলিম

শাসনের প্রতিষ্ঠাতা হলেন ইখতিয়ার-উদ্দিন মুহাম্মদ বিন বখতিয়ার খলজি।

দাহির ছিলেন-সিঙ্ধু ও মুলতানের রাজা।

| যে মুসলিম সেনাপতি স্পেন জয় করেন-তারিক মুহাম্মদ ঘুরী

| আরবদের আক্রমণের সময় সিন্ধু দেশের রাজা ছিলেন দাহির।

| প্রথম মুসলিম সিম্ধু বিজেতা ছিলেন মুহাম্মদ-বিন-কাসিম।

| সুলতান মাহমুদের রাজসভার শ্রেষ্ঠতম দার্শনিক ও জ্যোতির্বিদ ছিলেন- আল বেরুনী।

| গজনীর অধিপতি সুলতান মাহমুদ ভারতবর্ষ আক্রমণ করেন--১৭ বার।

| সুলতান মাহমুদের সভাকবি ছিলেন-- মহাকবি ফেরদৌসী।

প্রাচ্যের হােমার বলা হয়মহাকবি ফেরদৌসীকে।

| ভারতে সর্বপ্রথম তুর্কী সাম্রাজ্য বিস্তার করেন-মুহাম্মদ ঘুরী।

আল বেরুনী

প্রথম তরাইনের যুদ্ধ সংঘটিত হয়- ১১৯১ সালে। এ যুদ্ধে মুহাম্মদ ঘুরী

পৃথ্বীরাজের কাছে পরাজিত হন।

I দ্বিতীয় তরাইনের যুদ্ধে মুহাম্মদ ঘুরী পৃথীরাজকে পরাজিত করেন।১১৯২ সালে।

| ভারতবর্ষে সর্বপ্রথম মুসলিম শাসন প্রতিষ্ঠা করেন-মুহাম্মদ ঘুরী।

মুহাম্মদ ঘুরীর প্রকৃত নাম-মুঈজ-উদ-দীন মুহাম্মদ-বিন-সাম।

বখতিয়ার খলজির অতর্কিত আক্রমণে রাজা লক্ষ্মণ সেন পালিয়ে আশ্রয় নেন

পূর্ববঙ্গের বিক্রমপুরে।

- রাজধানী নদীয়ায়।

। বখাতিয়ার কর্তৃক বাংলা আক্রমণকালে লক্ষ্মণ সেন অবস্থান করছিলেন

বখতিয়ার খলজি বাংলা জয় করেন,১২০৪ খ্রিষ্টাব্দে এবং মারা যান১২০৬ খ্রি্টব্দে।

বাংলার মুসলমান রাজ্য সর্বাধিক কিস্তার লার্ভ করে

সুলতান শামসুদ্দিন ফিরােজহের

ইবনে বতুতা

বাংলায় সুলতানী শাসন প্রতিষ্ঠা
ফখরুদ্দিন মুবারক শাহের মাধ্যমে সােনারগাঁয়ে স্বাধীনতার সূচনা হলেও ইলিয়াস শাহী বংশের সুলতানদের
হাতে বাংলা (সমগ্র) প্রথম স্থিতিশীলতা লাভ করে। মরক্কোর বিখ্যাত পর্যটক ইবনে বতুতা ফখরুদন
মুবারক শাহের রাজত্বকালে ১৩৪৫-৪৬ খ্রিস্টাব্দে বাংলাদেশে আসেন।
| ইবনে বতুতা ভারতে আসেন১৩৩৪ সালে।
| বাংলায় ইবনে বতুতার আগমন ঘটে- ফখরুদ্দিন মুবারক শাহের রাজত্বকালে (১৩৪৫-৪৬ খ্রিন্টা্ে।
। ইবনে বতুতা ছিলেনমরক্কোর পর্যটক।
। চাঁদপুর থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত সুদীর্ঘ রাস্তা নির্মাণ করেন।- ফখরুদ্দিন মুবারক শাহ।
। সর্বপ্রথম যে চীনা পরিব্রাজক ভারতবর্ষে আগমন করেন- ফা হিয়েন।

logo
প্রযুক্তির পরিচর্চা ও মুক্ত চিন্তাধারা নিয়ে আমার ভেতরে আমি বসবাস করি।
  • Facebook
  • WhatsApp
  • Instagram
  • সাবস্ক্রাইব করুন নতুন আপডেট পেতে

    রিলেটেড পোস্ট

    কমেন্ট

    Free HTML 2

    Free HTML 3

    Free HTML 4